রংপুর মাতালেন মাশরাফি

0

চঞ্চল মাহমুদ,রংপুর ব্যুরো: প্রতিবন্ধী ক্রিকেটারদের প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ দেখতে এসে রংপুর মাতিয়ে গেলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে ম্যাচের অধিনায়ক ও রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাগতকাল বুধবার বেলা ১২টায় প্রতিবন্ধীদের প্রীতি ক্রিকেটারদের উসাহিত ও অনুপ্রাণিত করতে হেলিকপ্টারে করে রংপুর স্টেডিয়ামে উপস্থিত হন নড়াইল এক্সপ্রেসখ্যাত টাইগার মাশরাফি বিন মর্তুজাএসময় তার সঙ্গে ছিলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের এক সময়ের তারকা ও রংপুর রাইডার্সের খেলোয়াড় আব্দুর রাজ্জাক রাজ, শাহরিয়ার নাফীস ও মোহাম্মদ মিঠুন

ঘড়ির কাটায় সকাল দশটা বাজতে না বাজতেই মানুষের ¯্রােত যেতে থাকে রংপুর স্টেডিয়াম অভিমুখে। সবার চোখে মুখে তখন একটাই প্রত্যাশা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে সরাসরি দেখতে পারা।

এমন প্রত্যাশা নিয়েই স্টেডিয়ামে আসতে শুরু করেন শিশু-কিশোরসহ তরুণ-তরুণীরা। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকে মাশরাফিকে দেখার অপেক্ষার প্রহরও। তখন স্টেডিয়ামের ভিতরে অনুষ্ঠান মঞ্চে আকর্ষণ বলতে শুধুই শাহরিয়ার নাফীস।

পৌনে এগারোর সময় অন্যান্য অতিথিদের নিয়ে প্রীতি ম্যাচে অংশ নেয়া রংপুর রাইডার্সের জার্সি পরিহিত লাল ও নীল দলের প্রতিবন্ধী ক্রিকেটারদের সাথে কুশল বিনিময় করেন নাফীস। পরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় শুভেচ্ছা জানান রংপুরবাসীকে। প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন রংপুর রাইডার্সের হয়ে বিপিএলে ভালো খেলার। এসময় প্রতিবন্ধীদের জীবন মানোন্নয়নে সমাজের বিত্ত্ববানসহ সবাইকে পৃষ্টপোষকতার হাত বাড়াতে আহ্বান জানান তিনি।

প্রীতি ম্যাচের উদ্বোধন ঘোষণার পর সবার অপেক্ষা বাড়তে থাকে মাশরাফিকে ঘিরে। তখন ঘড়ির কাটা হেলে পড়েছে বারোটার দিকে। হঠাৎ আকাশের বুকে হেলিকপ্টারের আওয়াজে উল্লোসিত হয়ে উঠলো স্টেডিয়ামের গ্যালারীতে বসে থাকা ক্রীড়ানুরাগী দর্শকরা। অবশেষে ১১টা ৫৭ মিনিটে স্টেডিয়ামে পা রাখলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের অহংকার মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে তিনি একা নন, সঙ্গে ছিলেন আব্দুর রাজ্জাক রাজ ও মোহাম্মদ মিঠুনও।

হেলিকপ্টার থেকে নেমে ফুলেল শুভেচ্ছা সিক্ত মাশরাফিরা মাঠ থেকে সরাসরি অনুষ্ঠান মঞ্চে গিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে দোয়া চান রংপুর রাইডার্সের জন্য। একই সাথে আগামীতে রংপুর থেকে ভালো মানের খেলোয়াড় খুঁজতে সবাইকে নিয়ে কাজ করার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। এসময় শুভেচ্ছা জানান শাহরিয়ার নাফীস, আব্দুর রাজ্জাক রাজ ও মোহাম্মদ মিঠুন। পরে বেশ কয়েকজন প্রতিবন্ধী শিশু ও কিশোরের মধ্যে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর রেঞ্জ’র ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম পিপিএম, বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফওয়ান সোবহান তাজবীর, রংপুর জেলা ক্রিকেট সংস্থার সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম, রংপুর রাইডার্স এর সিইও ইশতিয়াক সাদিক, ৩২ ও ৩৪ ব্যাটালিয়ন এডজুটেন্ট, বিএনসিসি এর রংপুর ডিভিশনাল প্রধান মেজর মো. হারুন অর রশীদ, আরদ্রিদ এর চেয়ারম্যান জাবেদ আলী ও নির্বাহী পরিচালক বদিউজ্জামান আল-আমিন প্রমুখ।

প্রতিবন্ধী মানুষদের জন্য একটি বাধামুক্ত ও একীভূত সমাজ গঠনে অংশীদার হোন-এ স্লোগান নিয়ে প্রতিবন্ধীদের চিকিৎসা, পুনর্বাসনসহ, প্রতিবন্ধীদের খেলাধুলায় উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত করতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আরিদ্রিদ।

print

Leave A Reply